খানপরে চাঁদা না দেয়ায় শিক্ষানবিশ আইনজীবীকে কুপিয়ে জখম

নগরীর খানপুরে ৫লাখ চাঁদা না দেয়ায় শিক্ষানবিশ আইনজীবীকে কুপিয়ে জখম করেছে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীরা।

বুধবার (১৮ সেপ্টম্বর) সন্ধায় খানপুর এলাকায় সন্ত্রাসীদের অর্তকৃত হামলায় শিকার হন শিক্ষানবিশ আইনজীবী সাদ্দাম হোসেন মিথেল। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুরুত্বর রক্তাক্ত জখম মিথেলকে উদ্ধার করে খানপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মসজিদ খানুপর এলাকার জাতীয় পার্টির নেতা আব্দুল হাই পলুর ছেলে মিথেল পড়াশোনার পাশাপাশি ইট, বালু ও রডের ব্যবসার সাথে জড়িত।

এ বিষয় সাদ্দাম হোসেন মিথেল নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগের ভিত্তিতে জানাযায়, চলতি মাসের ১৪ তারিখে খানপুর চিল্ডেনপার্ক এলাকার গিয়াস উদ্দিন গেসুর ছেলে ও পিচ্চি হাবিব হত্যা মামলার আসামী, শীর্ষ সন্ত্রাসী এবং চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী সনেটের নেতৃত্বে ১১ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতির ভাতিজা ওলিদ, ক্রসফায়ারে নিহত মাস্টার দেলুর সহযোগী শাহ আলম, ছোট শাহীন, বোটকা সোহেল, সুমন ও রাজীব ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে।

চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় বুধবার সন্ধায় শিক্ষানবিশ আইনজীবী কোর্ট থেকে বাসায় যাওয়ার সময় খানপুর মহবত হাজীর মাঠে উল্লেখিত সন্ত্রাসীসহ অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা হত্যার উদেশ্যে আতর্কিত হামলা চালিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে।

শিক্ষানবিশ আইনজীবী মিথেলকে মৃত ভেবে সন্ত্রাসীরা ফেলে যায়। পরবর্তীতে স্হানীয়রা শিক্ষানবিশ আইনজীবী মিথেলকে উদ্ধার করে খানপুর ৩শ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করায়। পরে মিথেল চিকিৎসা নিয়ে কিছুটা সুস্হ্য হয়ে নারায়নগঞ্জ সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

 

Tags: No tags

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *