Sunday, September 27, 2020
প্রচ্ছদ লিড বন্দর ঘাটে যাত্রীবাহী নৌকা ডুবার ঘটনায় ভাল্কহেডসহ আটক ৭

বন্দর ঘাটে যাত্রীবাহী নৌকা ডুবার ঘটনায় ভাল্কহেডসহ আটক ৭

নগরীর বন্দর খেয়া ঘাটে ভাল্কহেড এর ধাক্কায় যাত্রীবাহী নৌকা ডুবার ঘটনা ঘটেছে। রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিকেল সোয়া ৪টায় নৌকাটি যাত্রী নিয়ে যাওয়ার সময় উল্টো দিক থেকে আসা ভাল্কহেড ধাক্কা দিলে এ ঘটনা ঘটে। এসময় ৫/৭ জন যাত্রী আহত হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনায় ভাল্কহেড এর ৭ জনকে আটক করেছে সদর নৌ-থানা পুলিশ। আটককৃতরা হলো, বরগুনা জেলার পারভেজ মিয়ার ছেলে পলাশ (৩৪), নড়াইল লোহাগড়া থানার ফুল মিয়ার ছেলে সোহেল মোল্লা ওরফে ইমরান (২০), একই এলাকার সৈয়দ আবুল কালাম আজাদ এর ছেলে বেলায়েত (২০), লক্ষীপুর রামগতি থানার মোস্তফার ছেলে মনির (২৫), ভোলা চর কেশন থানার জেবল হকের ছেলে রিপন (২৪), পিরোজপুর ঝালকাঠি থানার মৃত: শফিউদ্দিনের ছেলে হালিম (৫৮), নড়াইল লোহাগড়া থানার মাসুদ রানা (৩৫)।

প্রতক্ষদর্ষীরা জানান, বিকেল সোয়া ৪ টার দিকে বন্দর খেয়াঘাট থেকে যাত্রীবাহী একটি নৌকা যাওয়ার সময় উল্টো দিক থেকে আসা একটি ভাল্কহেড ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই নৌকাটি ডুবে যায়। এসময় নৌকাতে থাকা যাত্রীরা সাতার কেটে পাড়ে উঠে। পরে ঘটনাস্থল থেকে ভাল্কহেড সহ ৭ জনকে আটক করে নৌ-থানা পুলিশ। তবে এঘটনায় এখনও পর্যন্ত কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

তবে প্রতক্ষদর্ষীরা যাত্রীদের বরাত দিয়ে বলেন, এখনও ৩ জন নিখোজ রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এ বিষয় নৌ-ফাড়ি ইনর্চাজ আব্দুল হাকিম জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন নিখোজ হওয়ার খবর আমাদের কাছে আসেনি বা কেউ অভিযোগও করেনি। তবে ঘটনাস্থল থেকে ভাল্কহেড সহ ৭ জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।