Sunday, September 27, 2020
প্রচ্ছদ লিড ছাত্রলীগের নামধারী কয়েকজন বুয়েটের ছাত্রতে হত্যা করেছে: শামীম ওসমান

ছাত্রলীগের নামধারী কয়েকজন বুয়েটের ছাত্রতে হত্যা করেছে: শামীম ওসমান

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংসদ শামীম ওসমান বলেন, আজকে বিদ্রোহী কবিকে নিয়ে অনুষ্ঠানে আমি বিদ্রোহীভাবেই কথা বলবো। ইদানীং আমি অসুস্থ্য বোধ করছি কারন আমাদের দেশে বুয়েটের এক ছাত্রকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করেছে। আমাদের দলের ছাত্রলীগের নামধারী কয়েকজন।

বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) তিন দিনব্যাপী কাজী নজরুল সম্মেলন অনুষ্ঠানটির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, আমি প্রচন্ডভাবে কষ্ট পাই যে ছেলেটা মারা গেছে তার জন্য কারন এই দেশের বুয়েট ও মেডিকেলে মেধাবীদের মধ্যে মেধাবীরা সুযোগ পায়। আর হত্যার দায়ে যে ২০জনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে তারাও মেধাবী। আমি দেখলাম একজন ভ্যান চালক ভ্যান গাড়ি চালিয়ে তার ছেলেকে বুয়েটে পড়ার সুযোগ করে দিয়েছে তার ছেলেও এর সাথে সংশ্লিষ্ট।

আমরা সবাই সোনার কাঠি ধরার জন্য বাচ্চাদের মানুষ করছি রেজাল্ট করো বলছি কিন্তু মানুষের মত মানুষ করছি না। আমার প্রশ্ন সবার কাছে আমরা কি রেজাল্ট চাই না মানুষ চাই? কবি নজরুল,  রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে আলোচনা করেন তাদের কি কোন সার্টিফিকেট ছিলো  কিন্তু তাদের উপর পিএইচডি করছে মহার্তী মানুষেরা গবেষনা করছে গবেষনা শেষ হচ্ছে না। কারন তারা প্রকৃত শিক্ষিত ছিলো।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,কবি নজরুল, রবীন্দ্রনাথ ও শেখ মুজিবকে সম্মান করতে চাইলে তোমাদের মানুষ হতে হবে এবং দেশটাকে সোনার বাংলায় গড়ে তুলতে হবে। বাংলাদেশ একটি সাম্প্রদায়িক দেশ কিন্তু ভোলায় মাদ্রাসার ছাত্ররা মন্দিরের নিরাপত্তার জন্য যে কাজ করছে তা একটি গুড সাইন হবে বাংলাদেশ কি বিশ্বের ইতিহাস হয়ে থাকবে।

এর আগে তিন দিনব্যাপী কাজী নজরুল সম্মেলন অনুষ্ঠানটি সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয় কবি নজরুল ইনস্টিটিউটের আয়োজনে ও নারায়নগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সহযোগীতায় সকাল ১০টায় নারায়নগঞ্জ পাবলিক লাইব্রেরী থেকে একটি বনাঢ্য র‌্যালী বের হয়ে নারায়নগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার এসে সমাপ্ত হয়।

পরে কাজী নজরুল সম্মেলন অনুষ্ঠানটি কবি নজরুল ইনস্টিটিউট ট্রাস্ট বোর্ডের চেয়ারপার্সন জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম উদ্বোধন করেন।