প্রচ্ছদ লিড দেশে কিছু একটা ঘটানোর চেষ্টা হচ্ছে: শামীম ওসমান

দেশে কিছু একটা ঘটানোর চেষ্টা হচ্ছে: শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের  সাংসদ  শামীম ওসমান প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, দেশে একটা কিছু ঘটানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। অনেকেই আমাকে বলেছেন আপনি বারবার বলেন ইলেকশন করবেন না? হ্যাঁ আমিও বলি আমি ইলেকশন করবো না। ৯০% সত্য আমি ইলেকশন করবো না যদি আমার নেত্রীর উপর কোনো আঘাত না আসে। কারন এটা আমার পেশা না। আমার ক্ষুধা ভয় লাগে না।

সোমবার (২৮ অক্টোবর)  দুপুরে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জ রেবতী মোহন পাইলট স্কুল এন্ড কলেজের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ অনুষ্ঠানে তিনি এ সব কথা বলেন।

এ সময় তিনি আরও বলেন,  বাংলাদেশের সবচেয়ে ধনি পরিবারের লোক ছিলাম আমরা। আমি দেখেছি আমার বড় ভাই সেলিম ওসমান একশত কোটির উপরে নিজের পকেটের টাকা দিয়ে নারায়ণগঞ্জে স্কুল-কলেজ বানিয়েছে। আমার ভাই সেলিম ওসমান নিজে ঢাকা টু ময়মনসিংহ রুটে বাস চালিয়েছে। সে নিজে বাসের ছাদে করে মুরগি নিয়ে এসে বায়তুল মোকারম মসজিদের সামনে বিক্রি করেছেন। সেই টাকা দিয়ে সংসার চালিয়েছে।

তারপরও আমরা কারো কাছে হাত পাতি নাই মাথা নত করি নাই এটাই আমার বাপ মার শিক্ষা ছিলো। রাজনীতিকে আমি কখনো ধান্দা হিসেবে নেই নি এবং নেবও না।

এ সময় শামীম ওসমান বুয়েটে আবরার হত্যা প্রসঙ্গ টেনে বলেন, বুয়েটে একটি ছেলেকে পিটিয়ে মেরে ফেলা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মামলা হওয়ার আগেই ছাত্রলীগের ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বুয়েটে যারা ভর্তি হয় তারা সেরার সেরা। অথচ এ মামলায় আরো ২০ জন সেরার সেরা ছাত্র জড়িত হয়ে গেছে। যদি প্রমাণিত হয় তারা অপরাধী তবে তাদের কারো ফাঁসি হবে অথবা কারো যাবজ্জীবন সাজা হবে।

শামীম ওসমান শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমাদের লাইফ কিন্তু সামনে কঠিন। এখনই সময় এসেছে সবাই মিলে বাংলাদেশটাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার। তোমরা ভালো মানুষ হও। ভালো মানুষ হতে হলে ভালো ফলাফল করতে হবে।

তুমি যদি জীবনে কিছু করতে চাও? সবার আগে তোমার মা-বাবার প্রতি দায়িত্ব পালন করো, দ্বিতীয়ত হচ্ছে সমাজের জন্য দায়িত্ব পালন করো, তৃতীয়ত হচ্ছে দেশের জন্য কিছু একটা করো। তিনি বলেন, প্রতিটি ছাত্র-ছাত্রীদের মা-বাবার উচিত ধর্মের অনুভূতি তাদের বাচ্চাদের ভেতরে ঢুকিয়ে দেয়া। ধর্ম মানুষকে সুন্দর করে। ধর্ম মানুষকে সমৃদ্ধি করে। প্রকৃত ধর্ম আরেকজনকে সম্মান করতে শিখায়।

স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ নুর ইসলামের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন- সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ মজিবুর রহমান ও অধুনালুপ্ত সিদ্ধিরগঞ্জ পৌরসভার সাবেক প্রশাসক আব্দুল মতিন প্রধান, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা সেচ্ছাসেবকলীগের সাধারন সম্পাদক আমিনুল হক রাজু। এ সময় স্কাউটদের মনোজ্ঞ ডিসপে¬ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়।

বন্দরে হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন

দ্যা বাংলা এক্সপ্রেস ডটকমঃ খান পরিবারের পক্ষ থেকে কদম রসূল কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র মিহাদ ও বি এম ইউনিয়ন স্কুলের নবম শ্রেণীর...
error: Content is protected !!