Thursday, October 15, 2020
প্রচ্ছদ লিড-৪ কেক কেটে যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করলেন সাজনু

কেক কেটে যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করলেন সাজনু

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ১৯৭২ সালের ১১ নভেম্বর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে প্রয়াত শেখ ফজলুল হক মনি ভাইয়ের নেতৃত্বে যে যুবলীগ প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো সেই যুবলীগের আজকে ৪৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী।

আজকে আমরা সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে জননেত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে কাজ করে যাচ্ছেন, নারায়ণগঞ্জ যুবলীগ ও ঠিক তেমনিভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আপনারা খেয়াল করে দেখবেন, নারায়ণগঞ্জের যুবলীগ ২০০৫ সাল থেকে জাতির জনকের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে কাজ করে যাচ্ছে। সেই নির্দেশে কাজ করছে বিধায় আজকে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবলীগের কোনো নেতৃবৃন্দের গায়ে একটি কলঙ্কের দাগও লাগতে পারেনি।

সোমবার (১১ নভেম্বর) সকালে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নগরীর ২নং রেলগেইট সংলগ্ন জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন ভূইয়া সাজনু একথা বলেন।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জের যুবলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীর কাছে আমি অনুরোধ করবো, অতীতে যেভাবে জাতির জনকের কন্যার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষে,  যুবলীগ কাজ করে গেছে ঠিক সেই ভাবে সামনের দিনগুলোতে যদি কাজ করে তাহলে ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালে উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশের যে স্বপ্ন জাতির জনকের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার, তা অচিরেই পূরণ হবে।

আজকের এই দিনে আসুন আমরা শপথ করি, জাতির জনকের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করে দেশের উন্নয়নে কাজ করার এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আর্দশকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য নারায়ণগঞ্জের প্রতিটি ঘরে ঘরে একটি করে বঙ্গবন্ধুর সৈনিক তৈরি করা।

বক্তব্য শেষে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নেতাকর্মীদের নিয়ে কেক কাটেন শাহাদাত হোসেন ভূইয়া সাজনু। এর আগে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শাহাদাত হোসেন ভূইয়া সাজনু’র নেতৃত্বে চাষাড়া থেকে একটি র‌্যালী বের হয়।

র‌্যালীটি নগরীর প্রধান প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে ২নং রেলগেইট জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। র‌্যালী  শেষে জাতির জনকের প্রতৃকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন নেতৃবৃন্দরা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মহানগর যুবলীগের সহ-সভাপতি আমিনুর রহমান শাহীন, সদস্য গোলাম শরীফ, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও যুবলীগ নেতা এহসানুল হাসান নিপু, যুবলীগ নেতা জানে আলম বিপ্লব, মহানগরের ১১নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি চঞ্চল মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইউসুফ, ১২নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি সেলিম খান,

১৩নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন, ১৬নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক কাইয়ুম পারভেজ, ১৮নং ওয়ার্ডের সভাপতি আব্দুল খালেক, সাধারণ সম্পাদক মজিবর প্রমুখ।