শনিবার, অক্টোবর ২৪, ২০২০
প্রচ্ছদ লিড কাশিপুরে ৯টি ওয়ার্ড আঃলীগের কমিটি ঘোষণা

কাশিপুরে ৯টি ওয়ার্ড আঃলীগের কমিটি ঘোষণা

কাশিপুর ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

রবিবার ( ২৪ নভেম্বর ) বাদ এশা ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মো.আহমেদ আলী রাজু প্রধানের বাসভবনে ৯টি ওয়ার্ডের কমিটির ঘোষনা দেন কাশিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ দুলাল হোসেন।

কাশিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি দুলাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সাবেক সহ-সভাপতি এমএ মতিন সরদার।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক মো.মহিউদ্দিন মাহিসহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ৯টি ওয়ার্ডের কয়েক শতাধিক নেতাকর্মী।

গত ১লা নভেম্বর সকাল ১১টায় কাশিপুর ইউনিয়নের শান্তিনগর বালুর প্রাঙ্গনে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি দুলাল হোসেন এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মো.সানাউল্লাহ’র উপস্থিতিতে ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনের মাধ্যমে কমিটি,

৪ নভেম্বর বিকেল ৩টায় হাটখোলা মাঠ সংলগ্ন এলাকায় ৪,৫,৬ নং ওয়ার্ড কমিটি এবং ৮ নভেম্বর বাংলা বাজার প্রধান বাড়ী সংলগ্ন গোলাম ডাইংয়ের মাঠে  ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

উক্ত কমিটি গঠন অনুষ্ঠানে সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের নাম ঘোষনা করা হয়।

১ নং ওয়ার্ডে সভাপতি হিসেবে মো.ইকবাল শেখ,সাধারন সম্পাদক হিসেবে মো.বাবুল হোসেন, ২ নং ওয়ার্ডে সভাপতি হিসেবে মো.পিয়ার আলী,,সাধারন সম্পাদক হিসেবে মো.ছলিমউল্লাহ খান, ৩ নং ওয়ার্ডে সভাপতি হিসেবে মো.ইদ্রিস মিয়া,সাধারন সম্পাদক হিসেবে মো.হাবিবুর রহমান হাবিব, ৪ নং ওয়ার্ডে সভাপতি হিসেবে মো.এসএম লিটন,সাধারন সম্পাদক হিসেবে মো.আমানউল্লাহ,

৫ নং ওয়ার্ডে সভাপতি হিসেবে হাজী মো.সিরাজুল ইসলাম,সাধারন সম্পাদক হিসেবে মো.মোবারক হোসেন, ৬ নং ওয়ার্ডে সভাপতি হিসেবে মো.আবুল কাশেম,সাধারন সম্পাদক হিসেবে মো.তোফাজ্জল হোসেন খান (হাবু), ৭ নং ওয়ার্ডে সভাপতি হিসেবে মো.সহিদউল্লাহ সহিদ,সাধারন সম্পাদক হিসেবে মো.মহিউদ্দিন মুন্সি,

৮ নং ওয়ার্ডে সভাপতি হিসেবে মো.শাজাহান,সাধারন সম্পাদক হিসেবে মোহাম্মদ আলী, ৯ নং ওয়ার্ডে সভাপতি হিসেবে মো.মশিউর রহমান খান মিতুল,সাধারন সম্পাদক হিসেবে মো.লিটনের, নাম ঘোষনা করা হয়। উক্ত কমিটি গঠন অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন,আওয়ামীলীগ নেতা মো.শামসুল ইসলাম,

ফতুল্লা থানা সহ-সভাপতি এমএ আউয়াল,সাবেক সহ-সভাপতি এমএ মতিন মরদার,ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সহ-সাধারন সম্পাদক বিএম সফিউল্লাহ সফি, জেলা আওয়ামীলীগের উপ দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব,ফতুল্লা থানা কৃষকলীগের সভাপতি মো.আবু হানিফ, ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সদস্য এনায়েত হোসেন খোরশেদ, কাশিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোশারফ হোসেন রাজা মিয়াসহ আওয়ামীলীগের অনেক নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে পুর্নাঙ্গ কমিটি কাশিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের নিকট জমা দেয়ার অনুরোধ করে  সভার সমাপ্তি হয়েছিলো।

কমিটি ঘোষনা অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সাবেক সহ-সভাপতি এমএ মতিন সরদার বলেন,বাংলাদেশে একমাত্র আওয়ামীলীগেই চেইন অব কমান্ড রয়েছে। দলীয় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মো.দুলাল হোসেন কমিটি অন্যান্য নেতৃবৃন্দের সমন্ময়ে ৯টি ওয়ার্ড কমিটি গঠন করেছেন।

আমাদের নেত্রী বলেছেন এবং এখনও বলছেন যারা দলের নিবেদিত প্রান প্রান তাদেরকে নিয়েই দল গোছাতে হবে। আমরা নেত্রীর নির্দেশ মোতাবেক দলের ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের নিয়েই প্রতিটি ওয়ার্ড কমিটি গঠন করেছি। দলে অনেকে পদ পেয়েছে আবার কেউ পাবেনা তা নিয়ে মনোক্ষুন্ন হলে চলবেনা। যারা দলের জন্য নিবেদিক প্রান তরা কখনও পদের লোভে দল করেনা।

অনুষ্ঠানের সভাপতি মো.দুলাল হোসেন বলেন,প্রায় ১৫ দিন পুর্বে জেলা আওয়ামীলীগের নেতাদের দিয়ে দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনের মাধ্যমে ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ড কমিটি গঠন করা হয়েছে। একজন নির্বাচিত সভাপতি হিসেবে আশায় ছিলাম যে থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি এম.সাইফুল্লাহ বাদল ভাই ওয়ার্ডের কমিটি গঠন নিয়ে আমাকে ডাকবেন।

কিন্তু তিনি তা করে উল্টো ভারপ্রাপ্ত সভাপতি দিয়ে কমিটি গঠন করেছেন। নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,যেখানে আমি কাশিপুর ইউনিয়নের নির্বাচিত সভাপতি এখনও বেচে আছি সেখানে বাদলভাই কিভাবে দলের পদবিহীন একজনকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বানিয়ে দেন তা আমার বোধগম্য হয়না।

ভারপ্রাপ্ত সভাপতির বিষয়ে বাদল ভাইয়ের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি জোড় করেই আইউব আলীকে সভাপতি বানালাম, আপনি আগামীতে কাউন্সিল হলে আবার সভাপতি হবেন এটাই আমার শেষ কথা।

তিনি আরও বলেন, আমাকে বলা হয় কবরী পন্থী,আরে ভাই আমিতো সাইফুল্লাহ বাদল ভাইয়ের নির্দেশেই কবরী এমপির সাথে থেকেছি সে সময়ে এমপি শামীম ভাইয়ের নির্দেশে আমি একা নই বাদল ভাইও কবরীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনায় অংশ নিয়েছি কারন তিনি আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ছিলেন।

তিনি নব ঘোষিত ৯ টি ওয়ার্ডের সকল আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের সকল প্রকার ভয়ভীতির উর্ধ্বে থেকে একত্রিত হয়ে দলীয় কার্যক্রম পরিচালনার অনুরোধ জানিয়ে সভার সমাপ্ত ঘোষনা করেন।

0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

না’গঞ্জ-৯৯ ব্যাচ এর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

দ্যা বাংলা এক্সপ্রেস ডটকম: অরাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন নারায়ণগঞ্জ ৯৯ এর গেট-টুগেদার আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। শুক্রবার (২৩ অক্টোবর)...
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x