প্রচ্ছদ লিড-৪ আবারও ফতুল্লায় ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টায় শিক্ষক

আবারও ফতুল্লায় ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টায় শিক্ষক

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লা মাদরাসাতু আল হাসিব সুফফাহ কিন্ডার গার্ডেনের এক ৯ বছরের ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির  অভিযোগ উঠেছে ওই মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা আবদুল্লাহের বিরুদ্ধে ।

বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) রাত ৮ টায় শ্লীলতাহানির শিকার ওই ছাত্রীর বাবা শহীদুল ড্রাইভার ক্ষুব্ধ হয়ে  মাদ্রাসায় এসে অভিযুক্ত শিক্ষক মাওলানা আবদুল্লাহকে মারধর করে।

এ ঘটনার মাদ্রাসায় ও এলাকা জুড়ে হৈ-চৈ শুরু হয়। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

পরে মাদ্রাসার পরিচালক ও দাপা বাইতুস সালাত জামে মসজিদের ঈমাম হাফেজ মুফতি ইয়াসির আহম্মেদ স্থানীয় কিছু লোক জনকে সাথে নিয়ে এই বিষয়টি ধামাচাপা দিয়েছে বলে জানা যায়।

এদিকে সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে আশা ফতুল্লা মডেল থানার এস আই সাইদুর জানান, মাদরাসাতু আল হাসিব সুফফাহ কিন্ডার গার্ডেন এর ৯ বছরের এক ছাত্রীকে মারধর করায় তার বাবা শিক্ষক মাওলানা আবদুল্লাহকে মারধর করেছে। বিষয়টি আমারা মীমাংসা করে দিয়েছি।

জানা যায়, গত ২৫ নভেম্বর মঙ্গলবার মাদরাসাতু আল হাসিব সুফফাহ কিন্ডার গার্ডেনের শিক্ষক মাওলানা আবদুল্লাহ পড়ানোর সময় ছাত্রীর গায়ে ও পেটে হাত দেয়। পেটে হাত দেওয়ার ঘটনাটি দুই দিন পরে তার বাবা মাকে জানালে ছাত্রীর বাবা শহিদুল ড্রাইভার সহ এলাকার লোকজন মাদরাসায় এসে শিক্ষক মাওলানা আবদুল্লাহকে মারধর করে এবং মাদ্রাসার ভিতরে আটকিয়ে রাখে। মাদরাসার পরিচালক ও দাপা বাইতুস সালাত জামে মসজিদের ঈমাম ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা চালায়। পরে এই বিষয়টি পুলিশ মীমাংসা করে দিয়েছে বলে জানাযায়।

এই ঘটনার বিষয়ে ওই মাদ্রাসার পরিচালক ও ছাত্রীর বাবা শহীদুল ড্রাইভারের বক্তব্য পাওয়া জায়নি।

লুৎফা টাওয়ারের সেই সুমন কারাগারে

জামাই আদরে কোর্টে পাঠানোর অভিযোগ ওসির বিরুদ্ধে নগরীর লুৎফা টাওয়ারের মালিকের ছেলে লুৎফর রহমান সুমনকে...
Shares