Thursday, October 15, 2020
প্রচ্ছদ Uncategorized ফতুল্লা শিহাচরে তক্কার মঠ এলাকায় চলছে লাকির মাদক ব্যবসা

ফতুল্লা শিহাচরে তক্কার মঠ এলাকায় চলছে লাকির মাদক ব্যবসা

দ্যা বাংলা এক্সপ্রেস ডটকমঃ  ফতুল্লায় মাদক সম্রাজ্ঞী লাকি ও তার পরিবারের নিয়ন্ত্রেনে দাপা ইদ্রাকপুর, শিহাচর তক্কার মাঠ, লালখাঁ, ইয়াদ আলী মসজিদ এলাকা মাদক ব্যবসা। আর এই মাদক সম্রাজ্ঞীকে সেল্টার দিচ্ছে তক্কার মাঠ এলাকার কথিত যুবলীগ নেতা। মাদক সম্রাজ্ঞী লাকি দাপা ইদ্রাকপুর ইয়াদ আলী মসজিদ এলাকা মাদক ব্যবসায়ী ফাহিমের স্ত্রী।

জানাযায়, শিহাচর তক্কার মাঠ এলাকায় মাদক সম্রাজ্ঞী লাকি আবারো শুরু করেছে মাদক ব্যবসা। পুলিশের তালিকা ভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী হওয়ার পরেও হরধম পরিচালনা করছে মাদক ব্যবসা। পুরা পরিবারের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় বেশ কয়েকটি মাদক মামলা রয়েছে। তার পরেও পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে তক্কার মাঠ এলাকার কথিত যুবলীগ নেতা পরিচয় দানকারীদের সেল্টারে করছে মাদক ব্যবসা।

এদিকে মাদক সম্রাজ্ঞী লাকি শশুর বাড়ি দাপা ইদ্রাকপুর হলেও বর্তমানে শিহাচর তক্কার মাঠ এলাকায় বাড়ি ভাড়া নিয়ে করছে মাদক ব্যবসা। সেখানে প্রায় সবাই সম্রাজ্ঞী লাকি সম্পর্কে জানেন। তবে তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে রাজি নয়। কারণ তার রয়েছে কথিত যুবলীগের ক্যাডার।

খোঁজ নিয়ে জানাযায়, (১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮) বুধবার সন্ধ্যায়  ১‘শ পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট ও আড়াই‘শ গ্রাম গাঁজাসহ দাপা ইদ্রাকপুর এলাকা থেকে ফতুল্লা মযেড থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। গত ১৭ জুন, ২০১৯ ইয়াবাসহ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ফাহিম (৪২)কে গ্রেফতার করে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ। এসময় তার কছে থেকে ৩২ পিছ ইয়াবা উদ্ধার করে। (০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭) সালে মাদক ব্যসায়ী ফাহিম ও লাকির ছেলে মোঃ রবিন (২২) ১ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার করে ফতুল্লা থানা পুলিশ। তার পরেও থানা পুলিশের নজনে না থাকার কারণে এলাকায় মাদক ব্যবসা করছে।

এর আগে মাদক ব্যবসার দায়ে তার পরিবারের আট সদস্যকে ভ্রাম্যমান আদালত কর্তৃক ১ বছরের কারাদন্ড প্রদান করা হয়। কিন্তু জামিনে মুক্তি পেয়ে আবারও প্রকাশ্যে মাদক ব্যবসা পরিচালনা করছে গ্রেফতার রবিন ও তার পরিবার।