1. [email protected] : The Bangla Express : The Bangla Express
  2. [email protected] : christelgalarza :
  3. [email protected] : gabrielewyselask :
  4. [email protected] : Jahiduz zaman shahajada :
  5. [email protected] : minniewalkley36 :
  6. [email protected] : sheliawaechter2 :
  7. [email protected] : Skriaz30 :
  8. [email protected] : Skriaz30 :
  9. [email protected] : The Bangla Express : The Bangla Express
  10. [email protected] : willierounds :
শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৩:৫২ অপরাহ্ন

না’গঞ্জ মহানগর বিএনপি বিভাজনের রাজনীতি “মামলার ধুম্রজালে হেভীওয়েটরা”

দ্যা বাংলা এক্সপ্রেস
  • Update Time : সোমবার, ২১ নভেম্বর, ২০২২
  • ১৯৯ Time View
mohanagor bnp

দ্যা বাংলা এক্সপ্রেস ডটকম: নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির ৪১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করা পর থেকেই উত্তর ও দক্ষিন মেরুর রাজনীতির সূচনা হয়েছে। কমিটি ঘোষণা করার পর থেকেই শক্তিশালী একটি পক্ষ মুলধারাকে পঙ্গু করে রাজপথে নিজের আলাদা অবস্থানের জানান দিয়েছে।

আর শক্তিশালী পক্ষের নেতৃত্ব দিচ্ছেন মহানগর বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি ও বন্দর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মুকুল, এ্যাড. জাকির হোসেন, সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু,

সাবেক সহ-সভাপতি হাজী নুরুউদ্দিন আহম্মেদ, ফখরুল ইসলাম মজনু, মনিরুজ্জামান মনির, হাজী ফারুক হোসেন, সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আওলাদ হোসেন, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবুল কাউছার আশা সহ অসংখ্য স্থানীয় বিএনপির হেভীওয়েট নেতৃবৃন্দ।

আর তাদের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দলের প্রয়োজনে রাজপথে থাকছেন মহানগর যুবদলের সাবেক সভাপতি ও ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ।

দলীয় কর্মসূচি থেকে শুরু করে নিজেদের সাংগঠনিক অবস্থান ধরে রাখতেই এই হেভীওয়েট নেতারা হাটছেন একই কাতারে। আর তাদের পিছনে চলছে কর্মীদের জন¯্রােত।

এদিকে, নারায়ণগঞ্জ বিএনপির রাজনীতিতে শুরু থেকেই আতাউর রহমান মুকুল ক্ষমতাশীনদের সাথে আতাঁত করে চলছে বলে স্থানীয় মিডিয়াতে আলোচনা ও সমালোচনার কমতি নেই। বর্তমান সেই মুকুল বিএনপিকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে কাজ করার অপরাধে ক্ষমতাশীনদের সদ্য মামলায় এখন বাড়ি ছাড়া। তার বিরুদ্ধে এখনও চলমান প্রায় ডজন খানেক রাজনৈতিক মামলা। একজন ক্ষমতাশীনদের চাটুকারের বিরুদ্ধে কেন এতো মামলা সেই প্রশ্নের ধু¤্রজালে এখন বিএনপির তৃণমূল।

অপরদিকে, সেই হিসেবে বর্তমান মহানগর বিএনপির আহবায়ক ও সদস্য সচিবের বিরুদ্ধে কয়টি মামলা রয়েছে সেটা এখন দেখার পালা। বর্তমান সদস্য সচিবের অভিযোগের ভিত্তিতে জানাযায় আহবায়ক এ্যাড. সাখাওয়াত হোসেন খান নাসিক সিটি নির্বাচনে দলের টিকিট পেয়ে মেয়র নির্বাচন করতে আসলেও, ক্ষমতাশীনদের সাথে মোটা অংকের অর্থ আতাতের সম্পর্কে লিপ্ত হয়ে  বৈঈমানী করেছেন দলের সাথে। তাহলে বর্তমান সদস্য সচিব এ্যাড. আবুল আল ইউসুফ খান টিপু কেন দলের বৈঈমানের সাথে চেয়ার ভাগাভাগি করছে। এই প্রশ্ন এখন বিএনপি নেতাদের মাঝে ঘুরপাক খাচ্ছে।

এদিকে বর্তমান মহানগর বিএনপির দক্ষিন পারা নেতাদের কতগুলো রাজনৈতিক মামলা রয়েছে তা তাদের আইনজীবিদের দেয়া তথ্যে জানা যায়, আতাউর রহমান মুকুলের প্রায় ডজন খানেক, বর্তমান সে রাজনৈতিক মামলায় ঘর ছাড়া, সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু ৩ টা, সাবেক সহ-সভাপতি হাজী নুরুউদ্দিন আহম্মেদ ৪/৫ টা, হাজ¦ী ফারুক হোসেন ২ টা, মহানগর বিএনপির সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আওলাদ হোসেন ৫ টা, আর সবচেয়ে কনিষ্ট নেতা সাবেক সাংসদ এ্যাড. আবুল কালামের ছেলে আবুল কাউছার আশার চলমান মামলা রয়েছে প্রায় দুই ডজন, অপরদিকে মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদের তালিকা হিসেবের বাইরেই থাক।

অপরদিকে মহানগর বিএনপির উত্তর পারার রাজনীতি করা নেতাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি মামলা, হামলার শিকার হয়ে শহর ছাড়া ফতেহ রেজা রিপন। রয়েছে তার কর্মী বাহিনীর ¯্রােত। এর বাইরে অন্যান্য নেতাদের কর্মী সমর্থনের বিষয় বিএনপি নেতাদের সকলেরই জানা।

উত্তর পারার বিএনপির নেতাদের পাশে মহানগর যুবদল, ছাত্রদল, কৃষক দল সাথে না থাকলে রাজপথে তাদের কর্মী সমর্থন নিয়ে পরতে হতো বিপাকে বলে দাবি করেন স্থানীয় বিএনপি নেতৃবৃন্দ।

এদিকে, দক্ষিন পারার মহানগর বিএনপির নেতাদের সাথে চোখে পরার মত সহযোগী সংগঠন গুলো না থাকলেও প্রতিটি কর্মসূচিতে নেতা ও কর্মীদের মিলন মেলায় জন¯্রােতে পরিনত হয়। সেই সাথে জনসমর্থনের দিক দিয়ে থাকেন বেশ এগিয়ে। তাই তো শুরু থেকেই বেশির ভাগ সময় কর্মসূচি পালন কালে পুলিশি বাধাসহ হতে হচ্ছে মামলা হামলার শিকার।

আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2019 LatestNews
DESIGNED BY RIAZUL