সোমবার, এপ্রিল ১৯, ২০২১
প্রচ্ছদ লিড আমি দেখেছি করোনাকালে পুলিশের অবদান: বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী

আমি দেখেছি করোনাকালে পুলিশের অবদান: বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী

দ্যা বাংলা এক্সপ্রেস ডটকম: পুলিশ মেমোরিয়াল ডে-২০২১ তে কর্তব্যরত অবস্থায় জীবন উৎসর্গকারী পুলিশ সদস্যদের স্মরনে আলোচনা সভা ও সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান করা হয়।

সোমবার (১ মার্চ) সকাল ১১ টায় নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের আয়োজনে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ লাইন্সে অনুষ্ঠিত হয় এ অনুষ্ঠান।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী বীরমুক্তিযোদ্ধা গোলাম দস্তগীর গাজী(বীর প্রতিক)। বিশেষ অতিথি নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ,নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃআনোয়ার হোসেন,নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের সাংসদ সদস্য এ কে এম শামীম ওসমান,নারায়ণগঞ্জ ২ আসনের সাংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু,নারায়ণগঞ্জ সিভিল সার্জন ডা.মোহাম্মদ ইমতিয়াজ,।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, আমি দেখেছি করোনাকালে পুলিশের অবদান। আমরা যখন গাজী ল্যাব করলাম তখন খুঁজলাম কারা ফন্ট লাইনের যোদ্ধা। তাই প্রথমে পুলিশ লাইন্সে এসে প্রথম দিন আমরা পুলিশের করোনা টেস্ট করি এবং অবাক করার বিষয় প্রথম দিনেই ৪০ জন করোনার পজিটিভ রিপোর্ট পাই। তাই আমরা তাদের বললাম এদের কোয়ারেন্টে পাঠানোর কথা তা না হলে এই ৪০ জন ৪০ হাজার মানুষকে আক্রান্ত করবে করোনায়। আর আমরা যারা এই করোনার মহামারিতে নিরাপদে ছিলাম যাদের জন্য তাদের (পুলিশ, ডাক্তার, নার্স, সাংবাদিক) প্রধাননমন্ত্রী করোনার টিকা নিতে সুযোগ দিয়েছে। কারন করোনার মহামারিতে একেবারে সামনের সারি থেকে তারা কাজ করেছে। আমি ডিসিকে ধন্যবাদ জানাই তিনি প্রধানমন্ত্রীর পাঠানো ত্রান সুষ্ঠুভাবে বিতরণ করেছেন তার জন্য।

তিনি আরো বলেন, পৃথিবীর প্রায় ১৩০টা দেশ যখন করোনার টিকা পর্যন্ত পায়নি আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের এই স্বল্পোন্নত দেশে সাধারণ মানুষদের করোনার ভ্যাক্সিন বিনামূল্যে প্রদান করছে।তার মূল কারন ছিলো তিনি জানতেন এমন হবে তাই অগ্রিম টাকা তিনি দিয়ে রেখেছিলেন তাই তারা বাধ্য হয়ে আমাদের দেশে করোনার ভ্যাক্সিন পাঠিয়েছেন।

তাছাড়া করোনার মহামারির সময় আমাদের প্রধানমন্ত্রী এমন ব্যবস্থা করেছেন যার ফলে কেউ না খেয়ে থাকেনি।তিনি বলেছিলেন আমার বাংলাদেশে কেউ না খেয়ে থাকবে না।তিনি দেশকে ভালোবাসেন বলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে সোনার বাংলায় রূপান্তরিত করতে কাজ করে যাচ্ছেন এবং বাংলাদেশকে ইতিমধ্যে তিনি স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তরিত করেছেন।

আলোচনা শেষে কনেস্টেবল ইসমাঈল হোসেন,মোঃআবু হোসেন,মোঃজাকির হোসেন,মোঃরনি আহমেদ কর্তব্যরত অবস্থায় জীবন উৎসর্গ করায় তাদের স্মরনে আলোচনা সভা এবং পরিবারদের মাঝে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

এর আগে পুলিশ মেমোরিয়াল ডে-২০২১ উপলক্ষ্যে বনাঢ্য র‍্যালি ও নিহত পুলিশ সদস্যদের শ্রদ্ধা নিবেদন করে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করেন।

এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(ক সার্কেল)মেহেদী ইমরান সিদ্দিকীর সঞ্চালনায় আরো উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার(পিবিআই) মোঃমনিরুল ইসলাম,সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার(ট্রাফিক)সালেহ আহমেদ,নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার(পিবিআই)মোঃমনিরুল ইসলাম, নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক শরীফুদ্দিন আহমেদ সবুজ, নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ জামান, ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃআসলাম হোসেন,

নারায়ণগঞ্জ সিটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাইফুল্লাহ মাহমুদ টিটু,নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন স্মিত, নিহত কনেস্টেবল ইসমাঈল হোসেন পিতা দিল মুহাম্মদ,মোঃজাকির হোসেনের স্ত্রী সেলিনা বেগম,আবু হোসেন ছেলে তোফাজ্জল হোসেন,রনি মোহাম্মদ এর মাতা বিলকিস বেগম প্রমূখ।

0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

তিনি আমাদের জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ

দ্যা বাংলা এক্সপ্রেস ডটকম: ‘আসসালামু আলাইকুম’ আমি আপনাদের নারায়ণগঞ্জ জেলার ডিসি। খাবারটি সাহরিতে খেয়ে নেবেন। এতটুকুই করতে পারলাম। বিনিময়ে শুধু দোয়া করবেন।...
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x