Sunday, September 27, 2020
প্রচ্ছদ লিড-২ পূজা মন্ডপে সিসি ক্যামেরা লাগানোর প্রতি জোর দিলেন এসপি

পূজা মন্ডপে সিসি ক্যামেরা লাগানোর প্রতি জোর দিলেন এসপি

আসন্ন শারদীয় দুর্গাপূজাকে সামনে রেখে মতবিনিময় সভা করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ। মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে জেলা পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে জেলা ও মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দের সাথে এ সভা অনুষ্ঠিত হয় ।

মত বিনিময় সভায় পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ বলেন, শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে আমাদের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। এর আগে আমরা জেলা ও মহানগর পূজা উদযাপন প্রেসিডেন্ট সেক্রেটারির সাথে কথা বলেছি। এছাড়া সামাজিক ভাবেও আপনাদের সাথে আমাদের কথা হয়েছে। ‘ধর্ম যার যার, উৎসব সবার’ এ উৎসবটাই আমাদের কেন্দ্রবিন্দু।

তিনি বলেন, আমরা কিছুদিন পূর্বে ঈদ উল আযাহা সম্পন্ন করেছি। আমরা কিন্তু প্রতিনিয়তই এই উৎসবগুলো নিয়ে কাজ করছি। আমরা এটাকে কাজ মনে করিনা, আমরা এটাকে উৎসব মনে করি। আমরা চাই এ উৎসবটি যেন সুন্দর পরিসরে হয়। আইনশৃঙ্খলার যেন অবনতি না হয়। এবং এ উৎসবকে ঘিরে কিছু স্বার্থনেশী গোষ্ঠি যারা বার বার আমাদের উৎসবগুলোর ইমেজকে নষ্ট করার জন্য ব্যস্ত থাকে। আমরা মনেকরি, কোন কিছু খাটো করে দেখার কোন অবকাশ নেই। কিছু অসাধু চক্র রয়েছে এ উৎসবকে ভিন্নখাতে প্রভাবিত করার চেষ্টা করে।

বাংলাদেশে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী তাদের কর্মদক্ষতায় প্রমাণ দিয়েছে,ওই অশুভ চক্রকে অতিতে উৎসব বিনষ্ট করতে দেইনি এবং ভবিষ্যতেও দিবো না। সেই লক্ষেই আমাদের সিকোরিটি মাঠ তৈরি করা হয়েছে।

প্রতিটি পূজা মন্ডপে সিসি ক্যামেরা লাগানোর প্রতি জোর দিয়ে এসপি আরও বলেন, আজ মাত্র ১৯ তারিখ, পূজার এখনো অনেক সময় বাকি। এ সময়ের মধ্যে আপনারা পূজা মন্ডপগুলোর মধ্যে সিসি ক্যামারা লাগানোর ব্যবস্থা করবেন। আপনারা কথা বলে আমাকে জানাবেন। আমি চাই না নারায়ণগঞ্জে কোন ঘটনা ঘটুক।

এর আগে মত বিনিময় সভায় জেলা পূজা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখণ সরকার শিপন বলেন, আমরা পুলিশের প্রতি আস্থাশীল। সম্মলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে আমরা দূর্গাপূজা করে থাকি। কাল অথবা পরশু এমপি সেলিম ওসমান সাহেবের সাথে আমাদের মিটিং আছে, এরপর রাজনৈতিক নেতাদের সাথেও আমরা মিটিং করবো। সকলের দিকনির্দেশা আমাদের দরকার আছে। প্রতিটি পূজা মন্ডপের নেতৃবৃন্দের প্রতি অনুরোধ রেখে বলতে চাই, আপনারা পুলিশকে সহযোগীতা করবেন, পুলিশ আমাদের সাথে আছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্টের সম্মানিত ট্রাস্টিস পরিতোষ কান্তি সাহা, পূজা পরিষদ জাতীয় পরিষদের সদস্য বাসুদেব চক্রবর্তী, জেলা পূজা পরিষদের সভাপতি দীপক কুমার সাহা, সাধারণ সম্পাদক শিখণ সরকার শিপন, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার দাশ, মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অরুণ কুমার দাস, সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার সাহা,

সাবেক যুগ্ম সম্পাদক সাংবাদিক উত্তম সাহা, কোষাধ্যক্ষ সুশীল দাস, ফতুল্লা থানা কমিটির সভাপতি রঞ্জিত মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক অরুণ কুমার দাশ, সোনারগাঁও কমিটির সভাপতি লোকনাথ দত্ত, সাধারণ সম্পাদক এড. প্রদীপ ভৌমিক, বন্দর কমিটির শংকর কুমার দাশ, সাধারণ সম্পাদক শ্যামল বিশ্বাস, সিদ্ধিরগঞ্জ কমিটির সভাপতি শিশির ঘোষ অমর, আড়াইহাজার কমিটির সভাপতি হারাধন চন্দ্র দে, রূপগঞ্জ কমিটির সাধারণ সম্পাদক রামাকান্ত সরকার প্রমুখ ।

প্রসঙ্গত, এ বছর নারায়ণগঞ্জ জেলায় মোট ২০৫টি মন্ডপে দূর্গা পূজা হবে। এর মধ্যে রূপগঞ্জে ৪৮টি, সদর থানায় ৩৯টি, সোনারগাঁয়ে ৩১টি, আড়াইহাজারে ২৮টি, বন্দরে ২৬টি, ফতুল্লা ২৬টি ও সিদ্ধিরগঞ্জে ৭টি মন্ডপ।